Text size A A A
Color C C C C
সর্ব-শেষ হাল-নাগাদ: ১৫ জুন ২০২২

ইতিহাস

বঙ্গবন্ধু বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি ফেলোশিপ ট্রাস্ট এর পরিচিতিঃ

 

বঙ্গবন্ধু বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি ফেলোশিপ বাংলাদেশ সরকার কর্তৃক প্রদত্ত সম্মানজনক বৃত্তি যা বাংলাদেশী গবেষকদের দেশে ও বিদেশে উচ্চশিক্ষার মাধ্যমে বিশ্বমানের বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি গবেষণার সুযোগ সৃষ্টি করেছে । সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙ্গালী, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান স্মরণে বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মন্ত্রণালয়ের একটি প্রতিষ্ঠান হিসেবে ২০১৬ সালে বঙ্গবন্ধু বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি ফেলোশিপ ট্রাস্ট গঠন করা হয়। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এর আন্তরিক দিকনির্দেশনার আলোকে “বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি ফেলোশিপ ট্রাস্ট” বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির বিভিন্ন ক্ষেত্রে বিশেষায়িত যোগ্যতাসম্পন্ন প্রযুক্তিবিদ ও গবেষক তৈরীর লক্ষ্যে দেশে-বিদেশে খ্যাতনামা শিক্ষা ও গবেষণা প্রতিষ্ঠানে এমএস, ডক্টরাল ও পোস্ট-ডক্টরাল পর্যায়ে অধ্যয়নের জন্য ফেলোশিপ প্রদান করে। ফেলোগনের অর্জিত জ্ঞান, দক্ষতা ও অভিজ্ঞতা প্রয়োগের মাধ্যমে বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলার বাস্তবায়ন, বিজ্ঞানমনস্ক জাতিগঠন, ডিজিটাল বাংলাদেশ বিনির্মান ও দেশের সার্বিক উন্নয়নে অত্র ট্রাস্ট অব্যাহতভাবে কাজ করে যাচ্ছে। ইতোপূর্বে জুলাই ২০১০ হতে ডিসেম্বর ২০১৭ মেয়াদে “বঙ্গবন্ধু ফেলোশিপ অন সাইন্স এন্ড আইসিটি” শীর্ষক প্রকল্প বাস্তবায়ন করা হয়। উক্ত প্রকল্পের আওতায় এমএস ৫০ জন, পিএইচডি দেশে ৬০ জন, বিদেশে ১০০ জন এবং পোস্ট-ডক্টরাল পর্যায়ে ১১ জন সহ সর্বমোট ২২১ জনকে ফেলোশিপ প্রদান করা হয়। পরবর্তীতে বঙ্গবন্ধু বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি ফেলোশিপ ট্রাস্ট আইন ২০১৬ প্রণয়ন করা হয় এবং উক্ত আইনের আওতায় বিগত ৪ মে ২০১৬ তারিখে বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি ফেলোশিপ ট্রাস্ট গঠন করা হয়। ট্রাস্ট গঠনের পর থেকে অদ্যাবধি (২০২১-২০২২ অর্থবছর পর্যন্ত) ৪৪৭ জনকে দেশে ও বিদেশে ফেলোশিপ প্রদান করা হয়েছে যার মধ্যে ১৫৪ জন ইতোমধ্যে তাদের অধ্যয়ন সমাপ্ত করেছেন এবং ২৯৩ জনের অধ্যয়ন ও গবেষণা কাজ চলমান রয়েছে।


Share with :

Facebook Facebook